Skip to content

অবশেষে প্রতীক্ষার অবসান, দীর্ঘ ১১ মাস পর আজ থেকে চালু হলো সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on skype
Share on email
Share on pinterest

জাহাঙ্গীর হোসেন ও নাইমুল ইসলাম ভাঙড়:

 

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ১১ মাস পর আজ থেকে খুলল সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি অধিকাংশ স্কুল ও মাদ্রাসা। স্কুল শিক্ষা দফতরের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, স্কুলে ঢোকার সময় পড়ুয়াদের দূরত্ববিধি মানতে হবে। ব্যবহার করতে হবে স্যানিটাইজার। সবাইকে পরতে হবে মাস্ক। ক্লাসরুমে সব সময় দূরত্ববিধি মানতে হবে পড়ুয়াদের। সহপাঠীর টিফিন বা জল খাওয়া যাবে না। সহপাঠীর বই, ব্যাগ বা অন্য জিনিসপত্র ছোঁয়া যাবে না। স্কুল চত্বরে জড়ো হওয়া যাবে না। স্কুলে ঢুকতে পারবেন না অভিভাবকরা।

 

প্রসঙ্গত সমস্থ নির্দেশিকা মেনে সারা রাজ্যের মত দক্ষিন ২৪ পরগনার ভাঙড়ে আজ থেকে শুরু হচ্ছে সাতুলিয়া ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার পঠন পাঠন। এদিন মাদ্রাসার পক্ষ থেকে স্যানিটাইজার, মাস্ক সহ সমস্ত বিধিনিষেধ মেনে মাদ্রাসায় প্রবেশ করে ছাত্র ছাত্রীরা। শুধু তাই নয় শ্রেনীকক্ষে সোশ্যাল ডিসটেন্স মেনে বসানো হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের।

 

দীর্ঘদিন বাদে প্রথম আজ মাদ্রাসা খোলায় খুশি ছাত্র-ছাত্রীরা। সকলের সার্বিক সুস্থতা কামনায় আল্লাহর দরবারে দোয়া প্রার্থনায় শামিল হতে দেখা যায় শিক্ষক শিক্ষিকা ও পরিচালন সমিতির সদস্যবৃন্দ দের।

মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক শেখ গোলাম মইনুদ্দীন বলেন, আমরা মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তরের তরফ থেকে যেমনটি নির্দেশিকা পেয়েছি তা যথাযথ পালন করছি। প্রত্যেকই মাক্স পরে মাদ্রাসায় প্রবেশ করছে। দূরত্ব বজায় রাখার জন্য প্রত্যেকটি বেঞ্চে সিল মারা হয়েছে। সরকারি নির্দেশিকা আমরা যথাযথ পালন করছি।

 

এদিন সরজমিনে খতিয়ে দেখতে উপস্থিত হন মাদ্রাসার পরিচালন সমিতির সম্পাদক, আরাবুল ইসলাম তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন,আমাদের পশ্চিমবাংলায় করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হচ্ছে সেই জন্য সরকার নাইন থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাস পর্যন্ত স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারকে আমরা অভিনন্দন জানাই। ছাত্র-ছাত্রীরা বাড়ি বসে বোর হয়ে যাচ্ছিল দীর্ঘ ১১ মাস টানা ঘরবন্দি হয়ে পড়েছিল আজ থেকে আবার নিয়ম মেনেই ক্লাস চালু হলো সকলের সার্বিক সুস্থতা কামনা করি।